ডেভকথন : শুভ্র পাল

দেশের নামকরা অ্যান্ড্রয়েড ডেভেলপারদের মধ্যে শুভ্র পাল ( Shuvro Pal ) অন্যতম। জাতীয় পর্যায়ে অ্যান্ড্রয়েড অ্যাপ্লিকেশন ডেভেলপমেন্ট প্রোগ্রামে তিন মাসের ট্রেইনিং এ কাজ করেছেন লিড ট্রেইনার হিসেবে। কাজ করেছের দেশের প্রখ্যাত সব মোবাইল অ্যাপ ডেভলপমেন্ট কোম্পানীর সাথে। অ্যান্ড্রয়েড ডেভেলপার্স গ্রুপ বাংলাদেশের মাধ্যমে প্রতিনিয়ত সাহায্য করে যাচ্ছেন নতুন ডেভেলপারদের সাথে। লাইম এর পক্ষ থেকে আমরা কথা বলেছি তার সাথে।

 

Shuvro Pal

Shuvro Pal

 

  • কি করছেন এখন? ( কোথায় জবে আছেন বা নিজের কোম্পানী সম্পর্কে আমাদের বলুন )

গুগল ডেভেলপার্স গ্রুপের অধীনে অ্যান্ড্রয়েড প্রশিক্ষণ কর্মশালার খুলনা অঞ্চলের সিটি লিড এবং কো-অরডিনেটর হিসেবে কাজ করছি। নিজের ছোট একটি গ্রুপ রয়েছে “ WizadApps ” নামে। এছাড়া কয়েকটি কোম্পানির সাথে যৌথভাবে কিছু গবেষণামূলক কাজের সাথেও জড়িত।

 

  •  ছোটবেলা কোথায় কেটেছে? আপনার স্কুল , কলেজও ভার্সিটি নিয়ে আমাদের বলুন কিছু।

ছোটবেলা কেটেছে খুলনাতে। স্কুল ছিল এ অঞ্চলের বিখ্যাত খুলনা জিলা স্কুল, কলেজ ছিল এখানকারই সরকারি সুন্দরবন আদর্শ কলেজ। আর বিশ্ববিদ্যালয় জীবন কেটেছে খুলনা বিশ্ববিদ্যালয়ে।

 

  •  অ্যান্ড্রয়েড নিয়ে কবে থেকে কাজ শুরু করলেন? প্রথম অ্যাপ কি ছিলো?

২০১২ এর শেষের দিকে অ্যান্ড্রয়েড নিয়ে কাজ শুরু করি। প্রথম অ্যাপ ছিল “ফেসবুক বার্থডে রিমাইন্ডার”।

 

  •  আপনার ডেভেলপ করা যে অ্যাপটা, একদম মনের মত। সেটা নিয়ে কিছু বলুন আমাদের।

সত্যি বলতে এখনও মনের মত কোন কিছুই ডেভেলপ করতে পারিনি। এমনকি বিভিন্ন কোম্পানিতে কর্মরত অবস্থায় ডেভেলপ করা কিছু অ্যাপ লক্ষাধিক ডাউনলোড ছাড়ালেও সেগুলো আমার মনের মত হয়নি। এর কারণ অ্যাপ আইডিয়া থেকে শুরু করে ডিজাইন, ডেভেলপমেন্ট এমনকি মার্কেটিং এর প্রতিটা স্টেজেই আমি বেশ খুঁতখুঁতে। তাই নিখুঁত কাজটি এখনও করা হয়নি।
তবে আমার নিজের “বাংলা গণকযন্ত্র” অ্যাপটি ছিল গবেষণামূলক একটি কাজ, এই গবেষণার কাজটি হয়েছিল আমার মনের মত যদিও অ্যাপের ডিজাইনটা আর মনের মত করার সময় হয়নি।

 

  •  অ্যাপ ডেভেলপ করার প্ল্যান মাথায় আসলে কিভাবে ছক করেন? যারা নতুন ডেভেলপ করেছে এখানে তাদেরকেও দুই লাইনে গাইড করতে বললে কি বলবেন?

অ্যাপ ডেভেলপ করার প্ল্যান মাথায় আসলে প্রথমেই সম্ভাব্যতা যাচাই করি। টার্গেট ইউজার কারা এবং আমার সমাধানটি কিভাবে তাদের কাজে আসবে সেটা নিয়ে অনেকটা সময় চিন্তাভাবনা করি। এছাড়া মার্কেট অ্যানালাইসিসতো রয়েছেই। নতুনদেরকেও ঠিক একইভাবে কাজ করার পরামর্শ দিব কারণ যেনতেনভাবে একটি কাজ করে প্লেস্টোরে ছাড়ার দিন এখন আর নেই।

 

  •  অ্যাড্রেয়েড অ্যাপস ডেভেলপমেন্ট এর কোন সাইডগুলো নিয়ে কাজ করতে বেশি ভালোবাসেন? কিংবা আপনার ‘এরিয়া অব এক্সপার্টিজ’ কোনগুলো?

আমি UI Design, Animation, Sensor, Pattern Recognition, Google Map, Facebook API, GPS এবং Location ভিত্তিক কাজগুলো করতে বেশি পছন্দ করি।

 

  •  কোন কোন টুল ব্যবহার করেন ডেভেলপের জন্য?

প্রধানত Android Studio এবং Eclipse.

 

  •  ডেভেলপার হিসেবে কি কি রিসোর্স বা সাইট আপনার রেগুলার দেখতে হয় বা কাউকে দেখতে রেকমেন্ড করবেন?
  • stackoverflow.com
  • developer.android.com
  • vogella.com
  • github.com

 

shuvro pal google study jam

গুগল স্ট্যাডি জ্যামে শুভ্র পাল

 

 

  • দিনের বা রাতের কোন সময়টাতে কাজ করতে বেশি পছন্দ করেন?

রাতে!

 

  •  অ্যান্ড্রয়েড অ্যাপস ডেভেলপমেন্ট ছাড়াও আরো কি কি কাজ করছেন?

আগেই বলেছি বেশ কিছু কোম্পানির সাথে গবেষণামূলক কিছু কাজে জড়িত। এছাড়া নিজের গ্রুপটির সাথে গেম ডেভেলপমেন্ট ও হার্ডওয়্যার ভিত্তিক কিছু কাজও করছি। এছাড়া ছবি আঁকতে ও গান গাইতে পছন্দ করি ।

 

  •  অ্যাপ ডেভেলপমেন্ট নিয়ে ভবিষ্যত প্ল্যান সম্পর্কে আমাদের ছোট্ট করে বলুন।

মোবাইল অ্যাপ্লিকেশান এবং হার্ডওয়্যার ভিত্তিক কাজের সমন্বয়ে আমাদের দেশের সামাজিক সমস্যাগুলোর প্রতিরোধে অবদান রাখতে চাই।

 

  •  কাকে আপনার আইডল হিসেবে মনে করেন?
  • এ.পি.জে আব্দুল কালাম
  • স্টিভ জবস
  • গৌতম বুদ্ধ

 

  •  ডেভেলপার হিসেবে কোন সমস্যাগুলোর বেশি সম্মুক্ষীন হতে হয়?

পেইড অ্যাপ না করতে পারাটা আমার মনে হয় আমাদের দেশের সব অ্যান্ড্রয়েড অ্যাপ্লিকেশান ডেভেলপারদের অন্যতম বড় একটি সমস্যা। আমার ক্ষেত্রেও তাই। এছাড়া ব্যাক্তিগত পর্যায়ে অ্যাপ মার্কেটিং করাও বেশ সময়সাপেক্ষ একটি ব্যাপার।

 

  •  যারা প্রোগ্রামিং ও ডেভেলপমেন্টে আসতে চায় বা চলে এসেছে তাদের জন্য কি পরামর্শ দিবেন?

প্রোগ্রামিং ও ডেভেলপমেন্টে নতুন যারা আসে তাদের বেশির ভাগই ঝরে যায়। কারণ তারা প্রোগ্রামিংয়ের ভেতরের মজাটাকে আবিস্কার করতে পারেনা। তাই নতুন যারা এসেছে না আসতে চায় তাদেরকে বলছি, পৃথিবীর বিখ্যাত সব প্রোগ্রামারাও আপনাদের মতই নতুন ছিল যখন তারা শুরু করে। প্রোগ্রামিং করাটাকে দৈনন্দিন  অভ্যাস হিসাবে গ্রহণ করুন এবং অবশ্যই এটাকে ভালবাসতে শিখুন। দেখবেন প্রোগ্রামিং কঠিন বা দুর্বোধ্য কথাগুলো আপনার অভিধান থেকে উঠে গেছে।

 

  •  যদি বলি একটা মন্ত্র বলে দিন, যা দিয়ে যে আপনার সম্পর্কে পড়ছে তার জীবন বদলে যাবে, তাহলে কি মন্ত্র বলবেন?

নিজের উপরে বিশ্বাস হারাবেন না। মনে রাখবেন পৃথিবীতে সফল হওয়ার সংক্ষিপ্ত কোন রাস্তা নেই। আমরা যেসকল মহামনীষীদের জীবন ও দর্শনকে অনুসরন করি তাদের প্রত্যেককেই কঠোর সংগ্রাম ও অধ্যবসায় দিয়ে সফল হতে হয়েছে। আপনি যে স্বপ্নটি দেখেন নিজের উপর আস্থা রাখলে আপনি একদিন সেই স্বপ্নটিকে অবশ্যই সত্যি করতে পারবেন।

 

শুভ্র পাল এর সাথে যুক্ত থাকুনঃ

 

আরো পড়ুনঃ সফল অ্যাপ ডেভেলপারের এর ডেভকথনঃ সাব্বির আহমেদ রেজন

 

Mosharrof Rubel

আমাকে ফেসবুকে পাবেন এখানেঃ মোশাররফ রুবেল

You may also like...

Leave a Reply