অ্যান্ড্রয়েড এ্যাপ্লিকেশন মনেটাইজেশান (রেভেনিউ জেনেরেট) এর পথ সমূহ

সালাম সবাইকে।
অ্যান্ড্রয়েড লাইম শুরু হওয়ার পর সবাই বেশ ভালো সাপোর্ট জানিয়েছেন। আশা করি সামনের সময়গুলোতে সাথে থাকবেন।
আজকের টপিকটাও বেশ জরুরী। মনেটাইজেশন বা রেভেনিউ জেনেরেট। ক্যারিয়ার গড়তে গেলে কিভাবে আয় হয় সেই বিষয়টা ভয়াবহ গুরুত্বপুর্ন আগেই জেনে রাখা।
চলুন শুরু করা যাক। আয় করা বা রেভেনিউ জেনেরেটের জন্য মোবাইল এ্যাপ্লিকেশন সাধারনত চার ধরনের। সেগুলা হলঃ
১/ প্রিমিয়াম অ্যাাপ
২/ ফ্রীমিয়াম অ্যাাপ/ ইন অ্যাপ পারচেজ
৩/ ফ্রী অ্যাপ
৪/ কাস্টমারের জন্য ডেভেলপ
প্রথম ৩টা ক্যাটেগরির এ্যাপ্লিকেশন মার্কেট পেস থেকে আয়ের জন্য। মার্কেট প্লেসের উদাহরন হচ্ছে, গুগল প্লে স্টোর, অ্যামাজন স্টোর ইত্যাদি।

 

mobile_apps_revenue
– প্রথমে বলে নেই প্রিমিয়াম অ্যাপ কি? প্রিমিয়াম অ্যাপ হচ্ছে সেসব এ্যাপ্লিকেশন যেগুলা আমরা কিনে ব্যবহার করি। আপনি যদি গুগল প্লে স্টোরের ‘টপ পেইড এ্যাপ্লিকেশন‘ ক্যাটেগরিতে যান তাহলে দেখতে পাবেন সবগুলো এ্যাপ্লিকেশন কিনে ব্যবহার করতে হচ্ছে। যদিও আমরা বাংলাদেশীরা কিনে ব্যবহার করার দিকে এখনো খুব বেশি ঝুকি নাই।
– সেকেন্ড যে ক্যাটেগরি আছে তা হচ্ছে ফ্রীমিয়াম অ্যাপ বা ইন অ্যাপ পারচেজ এ্যাপ্লিকেশন। এইগুলা সাধারনত দুই ধরনের হয়।
প্রথম ধরনটা হচ্ছে ডাউনলোড এর পর একটা নির্দিষ্ট টাইম পিরিয়ড পর্যন্ত ব্যবহার করতে দিবে, তারপর টাকা দিয়ে কিনতে হবে।
সেকেন্ড ধরনটা হচ্ছে, পুরা এ্যাপ্লিকেশনটাই ফ্রী কিন্তু বিশেষ কোন সুবিধা পেতে হলে টাকা খরচ করতে হবে। যেমন, আপনি একটা ফ্রী গেইম বানালেন। সব ফ্রী, শুধু গেইমের মেইন ক্যারেকটার যে নয়ক সে যুদ্ধে আহত হলে সুস্থ হতে ৩০ মিনিট লাগে কিন্তু টাকা দিয়ে ‘হিলার’ কিনলে সাথে সাথে সুস্থ হয়ে যাবে!
এই দুই ধরনের এ্যাপ্লিকেশনগুলা ফ্রীমিয়াম বা ইন-অ্যাপ পারচেজ হিসেবে পরিচিত। মজার ব্যপার হচ্ছে পৃথিবীতে এখন সবচেয়ে জনপ্রিয় হচ্ছে এই ক্যাটেগরির এ্যাপ্লিকেশন।
– এরপর যে ক্যাটরিগরির এ্যাপ্লিকেশন তা আমরা সবাই যেগুলা ব্যবহার করি সেগুলাই, অর্থ্যাত ফ্রী এ্যাপ্লিকেশনসমূহ। ডেভেলপার হিসেবে আমি সব সময় ফ্রী এ্যাপ্লিকেশনই বানিয়েছি বেশি, কাস্টমারের জন্য বানানোগুলা বাদে।

– সর্বশেষ যে ক্যাটেগরি রয়েছে তা মার্কেট প্লেসের বাহিরের বানানো কাস্টমারের জন্য। এক্ষেত্রে কাস্টমার ও ডেভেলপারের চুক্তিতেই ডেভেলপিং চার্জ নির্ধারিত হয়।

এখন আরেকটা ব্যপারে আসা যাক। এগুলা আমরা কিভাবে করবো। সাধারনত মার্কেট প্লেসগুলোতে একাউন্ট নিতে হয়। এই একাউন্টগুলাকে বলা হয় ডেভেলপার একাউন্ট যেখান থেকে আপনার বানানো এ্যাপ্লিকেশন আপনি আপলোড করবেন। গুগল প্লে স্টোর থেকে একাউন্ট নিতে ২৫ ডলার লাগবে। কিন্তু অ্যামাজনে আবার একাউন্ট ফ্রী। আপনার অ্যাপ ফ্রী করবেন, না প্রিমিয়াম করবেন নাকি ফ্রীমিয়াম করবেন তা আপনার ডেভেলপার একাউন্ট থেকেই সেট করে দিতে পারবেন।

এখন আমরা ডেভেলপাররা যদি এ্যাপ্লিকেশন ফ্রী দেই বেশি, তাহলে রেভেনিউ আসবে কিভাবে? প্রকৃতপক্ষে কোন ফ্রী’ই ফ্রী না! যে উপায়ে ফ্রী এ্যাপ্লিকেশন থেকে রেভেনিউ জেনেরেট করা যায়ঃ
১/ বিভিন্ন এড নেটওয়ার্ক
২/ কাস্টম এডভ্যারটাইসমেন্ট
৩/ সেলিং ইউজার পাব্লিক ইনফরমেশান

 

– প্রচুর এডনেটোয়ার্ক রয়েছে যেগুলার বিজ্ঞাপন আপনার এ্যাপ্লিকেশনে ব্যবহার করতে আয় করতে পারেন। এসব এড নেটওয়ার্ক এর মধ্যে সবচেয়ে জনপ্রিয় অ্যাডমব। অ্যাডমব নিয়ে ফিউচারে বিস্তারিত লিখবো। এসব নেটওয়ার্ক সাধারনত আপনার এ্যাপ্লিকেশনের ইউজার কতক্ষন ব্যবহার করে বিজ্ঞাপন দেখলো তার উপর ভিত্তি করে পেমেন্ট দেয়। এ ক্ষেত্রে ইউজার আপনার এ্যাপ্লিকেশনে ঢুকে কতক্ষন ইন্টারনেটে থেকে বিজ্ঞাপন দেখলো তার উপর ভিত্তি করে পে করে। বাংলাদেশী একটা কোম্পানী গ্রিন এন্ড রেড সম্প্রতি এমন এড ব্যবস্থা এনেছে ডেভেলপারদের জন্য।
– কাস্টম বিজ্ঞাপন। এটা হচ্ছে আপনার এ্যাপ্লিকেশন রিলেটেড কোন কোম্পানী থেকে বিজ্ঞাপন নিয়ে যুক্ত করা। ক্লিয়ার না? ধরেন আপনি একটা এ্যাপ্লিকেশন বানালেন যেটা দিয়ে এসি( এয়্যার কন্ডিশনার) কন্ট্রোল করা যায়। এখন যেসব কোম্পানী এসি সেল করে তাদের বললেন, দেখ আমার একটা এ্যাপ্লিকেশন আছে তোমাদের কোম্পানী প্রোডাক্ট রিলেটেড, এত জন ইউজার আছে। তোমরা চাইলে আমার এখানে তোমাদের বিজ্ঞাপন দিতে পারো, সেক্ষেত্রে ইউজার তোমাদের প্রোডাক্ট কিনবে। আমাকে এই এমাউন্ট করতে হবে প্রতি মাসে।
– তৃতীয় ব্যপারটা আনইথিক্যাল হবে যদি আপনি ইউজার ইনফরম্যাশন ব্যবহারের আগে তাদের পার্মিশান নিয়ে না নেন। ধরা যাক আপনার এ্যাপ্লিকেশন ব্যবহার করতে ইউজারকে রেজিস্ট্রেশান করতে হয়। সে ক্ষেত্রে তাদের অথ্য আপনি পাবেন। যা মার্কেটারদের কাছে সেল করতে রেভেনিউ জেনেরেট করা সম্ভব। এটা অবশ্যই অনুচিত হবে যদি আপনি ইউজার থেকে শুরুতে পার্মিশান নিয়ে না নেন।

 

আজ এই পর্যন্তই।
আশা করি বুঝতে পেরেছেন ব্যপারগুলো।
কোন প্রশ্ন থাকলে কমেন্ট করতে পারেন।

 

আরো পড়ুনঃ ক্যারিয়ার হিসেবে অ্যান্ড্রয়েড অ্যাপ্লিকেশন ডেভেলমেন্ট

Mosharrof Rubel

আমাকে ফেসবুকে পাবেন এখানেঃ মোশাররফ রুবেল

You may also like...

Leave a Reply